চীনে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসকদের অনেক ত্যাগ শিকার করতে হচ্ছে।

চীনে কারুনা ভাইরাসের সংখ্যা দিনের পর বাড়ছে।

জার ফলে হাসপাতালে রোগীদের সময় মত চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে খুব চাপের মধ্যে থাকতে হচ্ছে।

তারা ঠিক মত ঘুমানোর সুযোগ পাচ্ছে না।

তাই তারা হাসপাতালের আসবাস পত্রের উপর হেলান দিয়ে রাত কাটাচ্ছেন।  সংবাদ মাধ্যম মেট্রোর একটি প্রতিবেদনে বলা ব্লা হয়েছে, চীনের হাসপাতালের  কিছু চিকিৎসক কালন্ত হয়ে হাসপাতালের মেঝেতে ঘুমাচ্ছেন।

এই ধরনের কিছু ছবি সামাজিক মাধ্যম গুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। একটি ছবিতে দেখা গেছে, একজন ডাক্তার কাজের চাপের কারণে তার টেবিলের উপর মাথা দিয়ে ঘুমাচ্ছেন।

বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিদিন আত রুগী আসার পরও তারা চিকিৎসায় কোন গারতি দিচ্ছেন না।  তারা চাপ থাকার পরও খুব সতর্ক ভাবে দায়িত্ব পাওল করে আসছেন। অনেক চিকিৎসক  একটানা ৩০ ঘন্তা পর্যন্ত কাজ করছেন।

অনেক চিকিৎসক বলেছেন, হাসপাতালে এত বেশি রোগী আমার জীবনে কোন দিন দেখিনি।

প্রতিবেদনে আর বলা হয়েছে চীনে এমনিতেই চিকিৎসক অনেক কম। উহানে চিকিৎসক কম আর অন্যান্য প্রদেশ থেকে ডাক্তার এই হাঁসপাতালে যোগ দিচ্ছেন।

ইতিমধ্যে কাড়ানোও ভাইরাস রোগীর সেবা দিতে গিয়ে একজন ডাক্তার মারা গেছেন। তার নাম হল- লি ওয়েন লিয়াং। তিনি এই ভাইরাসের বিষয়ে সবার আগে সতর্ক করে ছিলেন।  এই দিকে আল জাজিরা বলেছেন- আজ সকাল পর্যন্ত মোট ৬৩৬ জন রোগী মারা গেছেন।

৩১ হাজারের বেশি এখন আক্রান্ত হয়ে আছেন।