ওয়েবসাইট ভিজিটর আনার কার্যকরী উপায়।

ওয়েবসাইট খোলার পর ভিজিটর না থাকার  কারণে  মাথা খারাপ হয়ে যায়। অনেক চেষ্টা করেও যখন ওয়েবসাইটে কাঙ্ক্ষিত ভিজিটর না পারেন। তখন খুব খারাপ লাগে।

ওয়েবসাইট তৈরি করার পর ওয়েবসাইটের ভিতরের কাজ গুলো করে নিবেন। তার পর নিচের কাজ গুলো করে নিলেই আপনার সাইটে ভিজিটর থাকবে। চারটি উপায়ে ওয়েবসাইটে  ভিজিটর আনতে পারবেন।

১। সোশ্যাল মিডিয়াঃ ওয়েবসাইট তৈরি করার পর প্রথম ভিজিটর আসে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার পোস্টের লিঙ্ক শেয়ার করবেন।

এখান থেকে প্রচুর ভিজিটর আনতে পারবেন।

পেইজ খুলে লিঙ্ক শেয়ার করুন। পারলে পেইজ boost

করেন। পেইজের লাইক সংখ্যা বেড়ে যাবে। আরও বেশি ভিজিটর পাবেন। খুব গুরুত্ব পর্ণ।

২। ডাইরেক্ট ভিজিটরঃ ডাইরেক্ট ভিজিটর পাওয়ার জন্য ওয়েবসাইটের বিজ্ঞাপন দিতে হবে। এই বিজ্ঞাপন দুই ভাবে দেওয়া যায়। অনলাইনে বিজ্ঞাপন এবং টিভি, রেডিও, প্রিন্ড মিডিয়া। তবে আপনি অনলাইনে বিজ্ঞাপন দিলে খরচ অনেক কম হবে। অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেওয়ার ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন। যাতে বিজ্ঞাপন টা মোবাইলে বেশি শো করে। তাহলে কাঙ্ক্ষিত ভিজিটর পাবেন। বাজেট কম রেখে বিজ্ঞাপন সারা বছরই দিয়ে রাখবেন। এতে আপনার সাইটের কথা মানুষ মনে রাখবে।

ভিজিটর কোন দিন হারাবেন না। এটা মার্কেটিং টেকনিক।

৩। রেফারেল ভিজিটরঃ আপনার সাইটের লিঙ্ক অন্য সাইটে শেয়ার করলে। সেখান থেকে ভিজিটর আসবে।

তবে অন্যের সাইটে লিঙ্ক করা খুব জামেলার কাজ।

লিঙ্ক করার জন্য যে টাকা খরচ করবেন। সেটা দিয়ে বিজ্ঞাপন দিন। আর ভাল কন্টেন্ট লিখুন। তবে লিঙ্ক একবার করলে আর করতে হবে না। যত যত লিঙ্ক করবেন। তত ভাল। সেখান থেকে ভিজিটর আসবে।

যেসব সাইটে ভিজিটর বেশি সে সব সাইটে লিঙ্ক করেন। ভাল ফল পাবেন।

৪। সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটরঃ সার্চ ইঞ্জিন থেকে যেসব ভিজিটর আসে তাকে সার্চ ভিজিটর বলে। সার্চ ইঞ্জিন গুলো আপনার সাইটে তখনি রাঙ্ক করাবে। যখন আপনার সাইটের কন্টেন্ট ভাল হবে। পেইজ ভিউ বেশি হবে, ব্রাউন্স রেট কম হবে। তখনি আপনার সাইট কে গুগুল রাঙ্ক করাবে।

উপরের এই চারটা কাজ করলে আপনার সাইটে হিউজ ভিজিটর আসবে। এর বাইরে কিছুই করতে হবে না।

ভাল কন্টেন্ট যতই শেয়ার করবেন।  ততই আপনার সাইটের ভিজিটর বাড়বে।

সাথেই থাকুন। আরও বিস্তারিত পাবেন।